শিক্ষার্থীরা কীভাবে সেরা ল্যাপটপ বেছে নিবে

শিক্ষার্থীদের পড়াশুনার পাশাপাশি ভিডিও দেখা এবং গেম খেলার প্রবণতা থাকে। কাজেই একদম কম মূল্যের ল্যাপটপ কিনলে কিছুদিন পর পরিবর্তনের দরকার হতে পরে। কাজেই এমন একটি ল্যাপটপ কেনা প্রয়োজন যা সব ধরনের কাজ বেশ ভালভাবে করতে পারে। আসুন জেনে নেই কিছু সাজেশন।

একটি আদর্শ ল্যাপটপের কনফিগারেশন

১। ইনটেল কোর আই-৫ নির্বাচন করুণ কারণ সব ধরনের কাজের জন্য এটি আদর্শ। বাজেট কম হলে জেনারেশন কম যেমন ৩য় জেনারেশন কিনুন। একদম সম্ভব না হলে আই-৩ কিনুন।

২। ১৪ অথবা ১৫ ইঞ্চি স্ক্রীন সাথে এইচডি হলে ভাল।

৩। ১ টিবি হার্ডডিস্ক।
৪। ২ জিবি গ্রাফিকস কার্ড। তবে বাজেট ৩০ হাজার এর নিচে হলে শেয়ারড নিতে পারেন।

৫।  কমপক্ষে ৪ ঘন্টা ব্যাটারি লাইফ সিলেক্ট করুন কারণ শিক্ষার্থীরা ল্যাপটপকে ক্লাসে পাওয়ার আউটলেট ছাড়াই ব্যাবহার করতে পারবে।

৬ । ৪ জিবি রেম সিলেক্ট করুণ। বেশি দরকার হলে পরে বাড়িয়ে নিতে পারবেন।

৭।  বড় পিনের চার্জার দেখে কিনুন।

৮। ল্যাপটপটি হালকা হলে ভাল হয়।

আপনি কোন বিজ্ঞাপণে প্রলুব্ধ না হয়ে আপনার চাহিদা আগে ঠিক করুণ এবং যে কোন পপুলার ব্রান্ডের ল্যাপটপ বেছে নিন। আপনি ব্রান্ড ল্যাপটপের মূল্য এখান থেকে দেখে নিজের কনফিগারেশন নিজেই ঠিক করে নিতে পারবেন।