অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল দ্রুত চার্জ করার কার্যকরী উপায়

আজ আপনাদের দেখাবো কিভাবে আপনার অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল দ্রুত চার্জ করবেন। নিচের স্টেপ গুলি ফলো করলে আপনার অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল দ্রুত চার্জ হবে চলু দেখে নেই মোবাইল দ্রুত চার্জ করতে হলে কি করতে হবে –

ঠিক চার্জার এবং সঠিক কানেক্টর ব্যবহার করুন:

অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের চার্জিং পোর্টগুলো বর্তমানে ইউনিভার্সাল, কিন্তু তাই বলে সবই যে একই হবে সেটা কিন্তু নয়। কেননা, আপনি যদি দ্রুত চার্জ দিতে গিয়ে আপনার ডিভাইসটি ল্যাপটপের পোর্টের সাথে কানেক্ট করেন তাহলে এটা খুব একটা ভালো হবে না। কেননা, ল্যাপটপের একটি ইউএসবি ২.০ পোর্ট মাত্র ২.৫ ওয়াটের মত সাপ্লাই দিয়ে থাকে, একটি ইউএসবি ৩ পোর্ট দেয় ৪.৫ ওয়াটের মত। আর আপনার ওয়াল চার্জার এর থেকেও বেশি দিয়ে থাকে। ফলে, ল্যাপটপের চাইতে আপনি আপনার ডিফল্ট ওয়াল চার্জারে বেশি সুবিধা পাবেন।

এয়ারপ্লেন মোড ব্যবহার করুন :

আপনি যদি আপনার স্মার্টফোনটি দ্রুত চার্জ করতে চান তবে স্মার্টফোনের এয়ারপ্লেন মোড ব্যবহার করতে পারেন।

এয়ারপ্লেন মোড যেকোন ওয়্যারলেস রেডিও সিগন্যাল/কানেকশন ব্লক করে রাখে আপনার ডিভাইসে, ফলে এটি চালু থাকা অবস্থায় আপনি কোন কল, মেসেজ, নোটিফিকেশন কিছুই এক্সেস করতে পারবেন না। ফলে, আপনার ডিভাইসটি কিছুটা হলেও দ্রুত চার্জ হবে।

ফোনটি বন্ধ করে চার্জ দিন:

হয়তোবা কিছুটা অদ্ভুত শোনাবে কিন্তু ফোন অফ করে চার্জ করলে আপনি ভালো ফলাফল পাবেন। যেহেতু সেক্ষেত্রে ফোনের প্রায় কোন কম্পোনেন্টই কাজ করছে না তাই এয়ারপ্লেন মোড থেকেও ভালো ফলাফল পাবেন এক্ষেত্রে।

অপ্রয়োজনীয় ফিচারগুলো বন্ধ রাখুন:

প্রয়োজন না হলে আপনার ফোনের ডেটা কানেকশন, ব্লুটুথ, ওয়াইফাই, এনএফসি, লোকেশন সার্ভিস, জিপিএস বন্ধ রাখুন। কেননা আপনি ব্যবহার না করলেও ব্লুটুথ, ওয়াইফাই সবসময়ই সিগন্যাল রিসিভ করতে থাকে যা ব্যাটারি দ্রুত ড্রেইন করে এবং চার্জ হতেও এক্ষেত্রে বেশি সময় লাগে।

চার্জের সময় মোবাইল ব্যবহার করবেন না:

যখন আপনি স্মার্টফোনটি চার্জে দিয়ে রেখেছেন তখন স্মার্টফোন ব্যবহার করা থেকে নিজেকে বিরত রাখুন। এটা আপনার স্মার্টফোনের চার্জিং টাইম বৃদ্ধি করবে এবং স্মার্টফোনের উপরও খারাপ প্রভাব ফেলবে।

আশা করি একটি হলেও উপকার হবে উপরের নিয়ম গুলো অনুসরণ করলে।