fbpx
Jul 18, 2020
1058 Views

জেনে নিন সেরা ৫ টি প্রোগ্রামিং ভাষা এবং বার্ষিক আয়

Written by

প্রোগ্রামার শুনলে  প্রথমেই যে চিত্রটি আমাদের মনে  আসে তাতে কেউ একজন কম্পিউটারে কি যেন টাইপ করে যাচ্ছে, আর একের পর এক সব পেজে অ্যাক্সেস পেয়ে যাচ্ছে এবং পেজগুলো হ্যাক করে ফেলছে। প্রোগ্রামার শুনলেই হ্যাকার ভাবার একটা প্রবণতা আমাদের অনেকের মধ্যেই আছে৷ আসলে প্রোগ্রামিং এবং হ্যাকিং দুটো সম্পুর্ন আলাদা বিষয়৷

আমাদের দৈনন্দিন ফোন কল থেকে শুরু করে ফেসবুকিং,  ইমো ব্যবহার করা কিংবা পাবজি (PubG), ক্ল্যাশ অফ ক্ল্যান্স (Clash of Clans),  অ্যাংরি বার্ড (Angry Bird) এর মত  অনলাইন এবং অফলাইন গেমস, এই সবকিছুই প্রোগ্রামিং এর ফল৷ বরং প্রোগ্রামিংয়ের ক্ষেত্রে এগুলো খুব সাধারণ উদাহরণ৷

হাসপাতাল,  ব্যাংক,  সরকারী অফিস,  যুদ্ধ ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হাতিয়ার, সাবমেরিন জাহাজ,  স্যাটেলাইট,  রকেট এই সবকিছুকে পরিচালনা করতে প্রোগ্রামিং এর গুরুত্ব অপরিসীম৷ কম্পিউটার বা যেকোন ডিভাইস কে দুটি ভাগে ভাগ করা যায়,  একটি হলো হার্ডওয়্যার এবং অপরটি সফটওয়্যার৷ হার্ডওয়্যার হচ্ছে বিভিন্ন যন্ত্রের কলকব্জা বা যন্ত্রাংশ এবং সফটওয়্যার হচ্ছে সেসব যন্ত্রাংশ চালনার প্রাণ যা নির্দিষ্ট সংকেত বা কোড দিয়ে যন্ত্রাংশ চালনা করে। হার্ডওয়্যার কীভাবে কী করবে,  সেটি নির্ধারণ করে সফটওয়্যার, আর সফটওয়্যার কীভাবে কী করবে তা নির্ধারণ করে দেয় প্রোগ্রামার তার প্রোগ্রামিং এর মাধ্যমে৷

সফটওয়্যার হলো মূলত কম্পিউটার প্রোগ্রাম।কম্পিউটার প্রোগ্রাম হচ্ছে এক বিশেষ ধরনের ভাষায় লেখা সংকেত, যেগুলো এমনভাবে সাজানো থাকে যাতে করে কম্পিউটার হার্ডওয়্যার সহজেই বুঝতে পারে তাকে ঠিক কোন কাজটা কীভাবে করতে হবে। পৃথিবীতে মানুষের যোগাযোগের জন্য যেমন অনেক ভাষা আছে তেমনি কম্পিউটারের জগতেও অনেক ভাষা আছে, যেগুলোকে বলা হয় প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ৷ যেমন: জাভা,  সি,  পাইথন, পিএইচপি ইত্যাদি৷

যেকোন একটি ল্যাংগুয়েজ শিখে নিয়ে ঠিকমত কোড লিখলেই তৈরী হয়ে যাবে কম্পিউটার প্রোগ্রাম বা সফটওয়্যার৷ তবে এই কোড লিখতে গিয়ে যাচ্ছেতাই লিখে গেলে হবে না৷ প্রোগ্রামিংয়ে ভাল হতে গেলে থাকা চাই লজিক এবং  সৃজনশীলতা৷ তথ্যপ্রযুক্তির এই যুগে প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ জানা থাকলে আর যাই হোক আপনাকে বেকার থাকতে হবেনা। প্রোগ্রামিং শেখার প্রতি যাদের আছে এবং যারা একে পেশা হিসেবে নেওয়ার কথা ভাবছেন,

এ সময়ের উপযোগী ৫টি প্রোগ্রামিং ভাষা –

পাইথন (Python) :

আধুনিক ও অন্যতম সেরা একটি প্রোগ্রামিং ভাষা হলো পাইথন। এটি অবজেক্ট ওরিয়েন্টেড উচ্চস্তরের একটি প্রোগ্রামিং ভাষা।  এর কোর সিনট্যাক্স ও সিমান্টিকস অনেক সংক্ষিপ্ত,  সহজ ও পড়ার উপযোগী৷ প্রোগ্রামিং ভাষা সম্পর্কে পূর্ব কোন অভিজ্ঞতা ছাড়াই পাইথন সরাসরি শেখা যায়৷ ফলে উচ্চস্তরের এ ভাষাটি বিশ্বের তরুন সমাজে খুবই জনপ্রিয়।

ভাষাটির স্ট্যান্ডার্ড লাইব্রেরি অনেক সমৃদ্ধ।  তথ্য নিরাপত্তায়ও  এর রয়েছে বহুবিধ ব্যবহার৷ গুগল ও নাসার মতন বড় প্রতিষ্ঠানেও এ ভাষার ব্যাপক ব্যবহার লক্ষ্য করা যায়৷ লোকাল সফটওয়্যার ও সার্ভার সফটওয়্যার দুই ক্ষেত্রেই ব্যবহারযোগ্য। এটি উন্নত ফাইল সিস্টেম ও ডাটাবেজ সমর্থক প্রোগ্রামিং ভাষা।

তবে  আধুনিক স্মার্টফোনের অ্যাপ তৈরীর জন্য  পাইথন সুবিধাজনক ভাষা নয়। আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স, মেশিনলার্নিং,  বিগডেটা,  রোবোটিক্স এবং দ্রুত কোন সফটওয়্যার তৈরীর পেছনে এই ভাষাটি ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হচ্ছে।  ইউটিউব ও মূল বিটটরেন্ট ক্লায়েন্টের মত বিখ্যাত প্লাটফর্মগুলোয় ব্যবহৃত ভাষা পাইথন৷

এই ভাষাটি শিখে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার,  সফটওয়্যার ডেভলপার,  ওয়েব ডেভলপার,  কোয়ালিটি অ্যাসিউরেন্স ইঞ্জিনিয়ার,  ডেটা সায়েন্সের মত প্লাটফর্মে ক্যারিয়ার গড়ার সুযোগ রয়েছে৷

পরিসংখ্যান অনু্যায়ী একজন পাইথন ডেভেলপার একবছরে গড়ে আয় করেন ১১৪২৯১ ডলার।  বর্তমান সময়ের আউটসোর্সিংয়ে পাইথনের চাহিদা এতটাই বেশী যে ক্যারিয়ার হিসেবে পাইথনকে পছন্দ করা হবে সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত৷

জাভাস্ক্রিপ্ট (Java Script)

বর্তমানে পৃথিবীতে সবথেকে বেশী  ব্যবহৃত প্রোগ্রামিং ভাষা এটি যার সংক্ষিপ্ত রূপ (JS)। ওয়েবপেজ প্রোগ্রামিং করার জন্য জাভাস্ক্রিপ্ট একটি অবজেক্ট-ওরিয়েন্টেড,  ডায়নামিক ও ক্লায়েন্ট সাইড স্ক্রিপ্টিং বা ব্রাউজার স্ক্রিপ্টিং প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ৷ এটি এতোটাই প্রভাবশালী যে,  বর্তমানে জাভাস্ক্রিপ্ট ছাড়া কোন ওয়েবসাইট কল্পনা করাও কষ্টকর৷

এটি অত্যধিক সহজ প্রোগ্রামিং ভাষা।  প্রোগ্রামিং সম্পর্কে পূর্বজ্ঞান ছাড়াই এ ভাষাটি শেখা যায়৷ ফলে যারা প্রোগ্রামিংয়ে কেবলই পা রেখেছেন তাদের শেখার উপযোগী, শিক্ষার্থীবান্ধব একটি ভাষা৷ এটি সরাসরি এইচটিএমএল (html) পেজে রান করানো যায় এবং ওয়েবপেজ ডিজাইনের অপ্রতিদ্বন্দ্বী প্রোগ্রামিং ভাষা৷ জাভাস্ক্রিপ্টের প্রচুর ফ্রেমওয়ার্ক রয়েছে।

এমন কোন প্লাটফর্ম নেই যেটার জন্য জাভাস্ক্রিপ্টের মাধ্যমে হাইব্রিড অ্যাপ্লিকেশন তৈরী করা যায় না৷ তবে এ ভাষাটি কোন হাই লেভেলের প্রোগ্রামিং ভাষা নয়৷ ফলে এটি ফাইল তৈরী করতে কিংবা পড়তে পারেনা৷ জনপ্রিয় এবং সবথেকে সহজতর এই প্রোগ্রামিং ভাষাটি শিখতে পারলে এবং এতে নিজেকে দক্ষ প্রমাণ করতে পারলেই রয়েছে ওয়েব ডেভলপার,  সফটওয়্যার ডেভলপার, অ্যাপ ডেভলপার,  ইউআই/ইউএক্স ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে ক্যারিয়ার গঠনের সুযোগ৷

একজন দক্ষ জাভাস্ক্রিপ্ট ডেভলপারের বার্ষিক গড় আয় প্রায় ১১০৭৫৬ ডলার যা অন্য অনেক প্রোগ্রামিং ভাষার ক্যারিয়ার এর চাইতে বেশী আকর্ষণীয়৷

জাভা ( Java)

জাভা একপ্রকার উচ্চস্তরের প্রোগ্রামিং ভাষা যা বিশুদ্ধতম প্রোগ্রামিং ভাষা হিসেবেও পরিচিত৷ জনপ্রিয়তার শীর্ষে এবং সর্বাধিক মার্কেট সফল ভাষা এটি৷ আমাদের দৈনন্দিন জীবনে আধুনিকতার ছোঁয়া প্রদান করেছে, এমন প্রতিটি প্লাটফর্মেই জাভা রান হচ্ছে৷ বর্তমান প্রযুক্তির দুনিয়ায় প্রায় পুরোটাই দখল করে আছে জাভা যা প্রায় তিন বিলিয়ন ইলেক্ট্রিক ডিভাইস রান করছে৷

থ্রিডি ও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন প্রোগ্রামিং ভাষাটি অ্যান্ড্রয়েড অপারেটর সিস্টেমের অফিসিয়াল ভাষা এবং সকল প্লাটফর্মে রান হওয়ার মত অত্যন্ত শক্তিশালী ও নিরাপদ ভাষা৷ এ ভাষাটির আরো কিছু সুবিধাসমুহের মধ্যে রয়েছে- এর উন্নত ফাইল সিস্টেম ;লোকাল সফটওয়্যার ও সার্ভার সফটওয়্যার দুই ক্ষেত্রেই ব্যবহারযোগ্যতা ; সহজবোধ্য সিনট্যাক্স ৷

তবে এর সবথেকে বড় অসুবিধাটি হলো – প্রোগ্রামিং ভাষা সম্পর্কে পূর্ব অভিজ্ঞতা ছাড়া সরাসরি জাভা শেখা খুবই কষ্টকর৷ তাই জাভা শেখার পূর্বে জাভাস্ক্রিপ্ট, সি অথবা সি++ ভাষা শিখে তারপর জাভা শুরু করতে হয় যা খুবই সময়সাপেক্ষ৷ তবে একবার শিখে গেলে ওয়েব ডেভলপার,  অ্যাপ্লিকেশন ডেভলপার,  ইজিবি প্রোগ্রামার,  সফটওয়্যার ডেভলপার,  টেস্টার ইত্যাদি হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করার সুযোগ রয়েছে৷

পরিসংখ্যান অনু্যায়ী একজন জাভা ডেভেলপারের বার্ষিক গড় আয় ৭৩,২৬৮ ডলার৷ উপমহাদেশীয় প্রেক্ষাপটে পছন্দের প্রোগ্রামিং ভাষা হওয়ার ক্ষেত্রে জাভা একনম্বর প্রোগ্রামিং ভাষা হওয়ার দাবি রাখে৷

সি(C) সি++(C++):

প্রাচীনতম এবং শক্তিশালী প্রোগ্রামিং ভাষা সি জন্মের পরপরই খুব দ্রুত জনপ্রিয়তা পায়৷ বর্তমানে সফটওয়্যার শিল্পে সি ব্যবহৃত হচ্ছে কম্পাইলার তৈরি,  সিস্টেম প্রোগ্রামিং ও আইওটির ( ইন্টারনেট অব থিংস) এর বিভিন্ন প্রোগ্রাম তৈরীতে।  মাইক্রোসফট,  ওরাকল,  অ্যাপলসহ বিভিন্ন টেক জায়ান্টে কোম্পানি দ্বারা গ্রহণযোগ্যতা এই প্রোগ্রামিং ভাষাটিকে অনন্য করে তুলেছে৷

অপারেটিং সিস্টেম তৈরি ভাষাটির অন্যতম একটি কাজ৷ আপনি যদি প্রোগ্রামিং ভাষা শিখতে আগ্রহী হন তাহলে যাত্রাটা ‘সি’ দিয়েই শুরু করতে পারেন৷ একবার শিখে গেলে সফটওয়্যার ডেভেলপার কিংবা অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপার হিসেবে ক্যারিয়ার গড়ার সুযোগ রয়েছে৷ সর্বজনীন প্রোগ্রামিং ভাষা হিসেবে স্বীকৃত C আবার জন্ম দিয়েছে C++ ও C# এর মতো ভাষাগুলোর৷

সি প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজের বৈশিষ্ট্যগুলোর সমন্বয়ে তৈরী সি++ একটি উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন প্রোগ্রামিং ভাষা৷ আধুনিক প্রতিটি কম্পিউটার অপারেটিং সিস্টেমের মূল ভিত্তি C++।  উন্নতমানের সফটওয়্যার ডেভলপে এর বিকল্প নেই৷  বিশেষ করে হাই গ্রাফিকাল কম্পিউটার গেম তৈরীর জন্য অপ্রতিদ্বন্দ্বী এই প্রোগ্রামিং ভাষা। সি++ এর অসংখ্য শক্তিশালী প্রোগ্রামিং টুল থাকলেও নিরাপত্তার দিক থেকে সামান্য দুর্বলতা   রয়েছে।

অত্যন্ত পাওয়ারফুল এই প্রোগ্রামিং ভাষাটিকে আলাদা প্লাটফর্মে ব্যবহারের জন্য একই অ্যাপ্লিকেশনকে আলাদাভাবে লেখতে হয়৷ এ ভাষা শিখে অপারেটিং সিস্টেমে এবং কম্পাইলার হিসেবে ক্যারিয়ার গড়ার মতন সুযোগ রয়েছে। আর আপনি যদি কোন গেমিং প্ল্যাটফর্মে কাজ করতে চান, তাহলে এ ভাষাটি শেখা আপনার জন্য আবশ্যক৷  সি++ এর একজন দক্ষ ডেভলপারের বার্ষিক গড় আয় প্রায় ৭০৬৪১  ডলার৷

পিএইচপি ( PHP) :

পিএইচপি হচ্ছে একটি স্ক্রিপ্টিং ল্যাংগুয়েজ যা মূলত সার্ভার সাইড স্ক্রিপ্টিংয়ের জন্য ব্যবহৃত হয়। এটি বেশিরভাগ ওয়েব সার্ভার তৈরীর কাজে ব্যবহৃত হয়৷ তাই ওয়েব নির্ভর প্রজেক্টগুলোতে পিএইচপি ডেভলপারদের চাহিদা ব্যাপক।  ইন্টারনেটে প্রায় ৮০% ওয়েবসাইট ডেভলপমেন্ট অ্যাকাউন্টিংয়ের জন্য বহুল ব্যবহৃত ভাষা পিএইচপি।

ওয়ার্ডপ্রেস, জুমলা, ধ্রুপাল এর মত জনপ্রিয় সব সফটওয়্যার পিএইচপি দিয়ে তৈরী৷  ফেসবুক (Facebook),  উইকিপিডিয়া (Wikipedia),  ই-বে(E-bay) সহ প্রায় সবগুলো অনলাইন মার্কেটিং সাইট তৈরীর পিছনেও রয়েছে পিএইচপি৷ এটি শক্তিশালী ও নিরাপদ একটি ভাষা। এর রয়েছে উন্নত ফাইল সিস্টেম৷

সকল প্লাটফর্মে রান করা যায় এবং এইচটিএমএল (HTML)-এও রান করানো যায়৷ ওয়েব ডেভলপার,  অ্যাপ ডেভলপার কিংবা ওয়েব প্রোগ্রামার হিসেবে ক্যারিয়ার গড়তে চাইলে পিএইচপি(PHP) ভাষাটি শিখে নিতে পারেন।একজন পিএইচপি ডেভেলপারের বার্ষিক গড় আয় ৬১,৪০৫ ডলার।

এছাড়াও জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছে সি শার্প(C#) যা  মাইক্রোসফট ডট নেট ফ্রেমওয়ার্কে কাজ করার জন্য অধিকাংশ সফটওয়্যার নির্মাতাদের প্রথম পছন্দ, সুইফট (swift) যা আইফোন ও আইপ্যাড অ্যাপ্লিকেশিন তৈরীর একমাত্র প্রোগ্রামিং ভাষা,  গুগলের তৈরী গোল্যাঙ্গ।  আরো রয়েছে রুবি, এসকিউএল,  ভিজ্যুয়াল বেসিক ডট নেট।

প্রোগ্রামিং ভাষা শিখতে হলে কম্পিউটার সায়েন্সে পড়তেই হবে এমন কোন কথা নেই৷ আগ্রহী তরুন তরুনীরা ইউ টিউব কিংবা কোর্সেরা ডট কম, দ্বিমিক কম্পিউটিং ডট কম,  কোড ডট অরগানাইজেশান সহ এমন আরো অনেক ওয়েবসাইট আছে যেখান থেকে প্রোগ্রামিং এর অসংখ্য কোর্স লুফে নিতে পারেন৷ তবে পরিশ্রম আর ধৈর্যের বিকল্প নেই- এই কথাকে মাথায় রেখে আত্মোন্নয়নের এই সুযোগকে কাজে লাগানোর জন্য এই মুহূর্ত থেকে পরিকল্পনা শুরু করে ফেলতে পারেন।

Comments to জেনে নিন সেরা ৫ টি প্রোগ্রামিং ভাষা এবং বার্ষিক আয়

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *